অনলাইনে নিজের সময়মতো পড়ার অ্যাপ/প্ল্যাটফর্ম

A Natural Girl

অনলাইন লাইভ সেসনে যোগদান করার অ্যাপ / প্ল্যাটফর্ম

সাম্প্রতিক বিজ্ঞপ্তি

আমাদের কথা

সবুজ অবুঝ শিশু অঙ্গনের উদ্দেশ্য নিছক পড়ানো নয়। বিশাল আকাশ অফুরন্ত বাতাস আর উজ্জ্বল আলোর মাঝে শিশুর মন একটি ছোট্ট অঙ্কুরের মত। তার মনের সবুজ ভাব ও অবুঝ ভাবনাগুলোর সুস্থ ও সঠিক বিকাশের উপযোগী পরিবেশ গড়ে তোলাই –– আমাদের লক্ষ্য।

এই লক্ষ্য সামনে রেখেই আমরা এগিয়ে চলবো।  

ভালোবাসি রোদজল আলোর কিরণ
ভালোবাসি নীলাকাশ নদী মাঠ বন
ভালোবাসি ফুল গান অমল জীবন
ভালোবাসি  আমাদের শিশু অঙ্গন ।।

 

পরিবেশ ও পদ্ধতি

আন্তরিক বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশ

স্কুলের পরিবেশ - শিক্ষার একেবারে গোড়ার কথা। শিক্ষাবিজ্ঞানীরা বলছেন প্রথাগত শিক্ষা অনেকাংশে যান্ত্রিক। তাকে মানিয়ে নিতে শিশুরা সচরাচর সময় নিয়েই থাকে। সেখানে পরিবেশের ভূমিকা খুব বড় হয়ে দাঁড়ায়। সে পরিবেশ যদি শিশু-মনের উপযোগী না হয় তবে শিক্ষার সমস্ত আয়োজনই ব্যর্থ হতে বাধ্য।

তাই সবুজ অবুঝ শিশু অঙ্গনে এমন পরিবেশ রচনা করার চেষ্টা করা হয় যেখানে শিশুরা সহজে নিজেকে মানিয়ে নিয়ে মনের খুশিতে মেলামেশা করতে পারবে, শিক্ষক-শিক্ষিকাদের কাছে নিজের সুবিধে-অসুবিধে প্রকাশ করতে পারবে। স্কুলে এসে তারা যাতে পারিবারিক পরিমণ্ডলের অভাব বোধ না করে তাই তাদের সঙ্গে শিক্ষক-শিক্ষিকারা বন্ধুর মতই মিশে থাকেন। স্কুলের গোড়ার দিন থেকেই শিক্ষক-শিক্ষিকারা তাই তাদের দিদিভাই-দাদাভাই আর বড়দি হলেন বড়দিভাই — আত্মীয়তার সূচনা।

শ্রদ্ধা-ভালোবাসার মাধ্যমে শৃঙ্খলাবোধ জাগানো

শৃঙ্খলা ব্যতীত জীবন অচল - এই বোধ প্রাপ্তমনস্কের। শিশুমনের পক্ষে স্বতঃপ্রণোদিতভাবে শৃঙ্খলাপরায়ণ না হওয়াটাই স্বাভাবিক। সেই মনকে শৃঙ্খলাপরায়ণ করার জন্য অনেক সময় যান্ত্রিক শাসন বা বাঁধনকে অবলম্বন করে ফেলা হয়। শিক্ষাবিদদের মতে এতে সুফলের চেয়ে কুফল-ই বেশি।

সবুজ অবুঝ শিশু অঙ্গনে প্রত্যেক শিশুকে মানবিক গুণসম্পন্ন এক এক জন ব্যক্তিমানুষের মর্যাদা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। পঠন-পাঠন এবং আচরণগত দু-রকম ভুল-ভ্রান্তির ক্ষেত্রে অযৌক্তিক শাস্তি প্রদানের আশ্রয় না নিয়ে তার সঙ্গে আলোচনা করে সমস্যাগুলো দূর করা হয়। 

প্রতিষ্ঠার প্রথম দিন থেকেই শারীরিক শাস্তি প্রদান বা মানসিক আতঙ্ক সৃষ্টি করা কঠোরভাবে নিষিদ্ধ

সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডল

মানুষ এই পৃথিবীতে সম্ভবতঃ একমাত্র প্রাণী যে প্রয়োজনের বাইরের ক্রিয়া-কলাপেও যথেষ্ট সময় কাটায়  — ছবি আঁকে, নাচে, গান গায়, লেখালেখি করে। প্রয়োজন-মাফিক রুটিনবদ্ধ জীবনটার পরিপূরক হিসেবে এই সবের মধ্য দিয়ে অপ্রয়োজনের আনন্দ উপভোগ মানুষেরই আবিষ্কার। শিশুরা তার জ্বলন্ত উদাহরণ। শিশুদের স্বাধীনতা থাকা উচিত এই আনন্দ উপভোগের। তা ছাড়া, তারা যা শিখছে তার প্রয়োগ করার সুযোগ ঘটে যাচ্ছে শিল্প চর্চার মাধ্যমে।

সবুজ অবুঝ শিশু অঙ্গনে কারণে-অকারণে স্বাধীনভাবে-পরিকল্পিতভাবে নিয়মিতভাবে, হঠাৎ করে অনুষ্ঠানের আয়োজন চলতে থাকে। রবীন্দ্রজয়ন্তী, শিক্ষক দিবস, শিশুদিবস, স্বাধীন মজার আসর  — শিশু-শিক্ষার্থীদের মনের মত দিন সব।

বই পড়া

বই - পড়ার বইয়ের বাইরের বই - মানুষের সবচেয়ে বড় বন্ধু।

 

সিলেবাসে শিশুরা যা পড়ে তাতে তথ্যের ভার থাকে, তাকে অনেক সময় অনিচ্ছাভরেও গ্রহণ করতে হয়। সেই পড়াটা সম্পূর্ণ হয়ে ওঠে, জীবন্ত বলে মনে হয় — পড়ার বইয়ের বাইরের বই পড়ার অভ্যাস থেকে। আবার সেই অভ্যাস ভাষার ব্যবহার বাড়িয়ে দেয়। তাই পাঠ্য বইয়ের ভাষাগুলো সহজতর হয়ে ওঠে। আর তা ছাড়া এই সব বই জীবন-জগতের কত দরজা খুলে দেয়। কল্পনাশক্তি বাড়িয়ে দেয়। শিশুরা প্রবলেম সলভিং-এ আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠে।

বার বার তাই বই এনে দেওয়া হয় শিশুদের কাছে, শিশুদের সামনে। লাইব্রেরীতে বই। সবুজ অবুঝ শিশু অঙ্গনে স্পোর্টসের উপহার - বই, বার্ষিক ফলাফলের সঙ্গে উপহারও - বই-ই, প্রত্যেকের জন্যে আর প্রতি বছর বইয়ের মেলা। 

আধুনিক - লার্নার ফ্রেন্ডলি পাঠ্যবইয়ের ব্যবহার

প্রত্যেক ক্লাসের পাঠক্রমকে মাথায় রেখে পাঠ্যবই নির্বাচন করার সময় লক্ষ্য রাখা হয় —

  • বইটি নির্দিষ্ট ক্লাসের উপযোগী কিনা

  • পাঠ্য বিষয়বস্তু পর্যায়ক্রমিকভাবে উপস্থাপিত হয়েছে কিনা

  • আলোচনায় যুক্তিবোধ অটুট রাখা হয়েছে কিনা

  • অলংকরণে রুচিশীলতা বজায় রেখে আকর্ষণীয় কিনা

সুষ্ঠু পঠন-পাঠন

সুষ্ঠু পঠন-পাঠনের লক্ষ্যে নিয়মিত

 

  • ক্লাসের কাজ

  • বাড়ির কাজ এবং

  • ছুটির কাজ দেওয়া হয়।

  • সারপ্রাইজ ক্লাস টেস্ট নেওয়া হয়

  • পরীক্ষামূলকভাবে শুরু হয়েছে MCQ নির্ভর অনলাইন এক্স্যাম।

পর্যাপ্ত শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষাকর্মী

সবুজ অবুঝ শিশু অঙ্গনে এই মুহূর্তে প্রায় ৪০ জন শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষাকর্মী রয়েছেন। 

নিয়মিত শিক্ষক প্রশিক্ষণ

অধ্যক্ষা শ্রীমতী স্বপ্না রায়, ডিরেক্টর শ্রী পুষ্পজিৎ রায় এবং সবুজ অবুঝ শিশু অঙ্গনের মেন্টর শ্রী শক্তিপদ পাত্র মহাশয়ের তত্ত্বাবধানে  শিক্ষক-শিক্ষিকারা নিয়মিত প্রশিক্ষণ পেয়ে থাকেন। 

গত পঁচিশে বৈশাখ ১৪২৪-এ রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী উদ্‌যাপনের দিন স্যার শ্রী শক্তিপদ পাত্র সমস্ত  শিক্ষক-শিক্ষিকাদের হাতে তাঁর লেখা রবীন্দ্রনাথ, মূল্যবোধ ও শিক্ষক শীর্ষক লেখাটি তুলে দেন। লেখাটি গত ২৮শে মার্চ তারিখে বিশ্বভারতীর পাঠভবনে প্রদত্ত বক্তৃতার লিখিত রূপ। লেখাটির সফট কপি দেওয়া হল।

Please reload

Play is the work of the child.

মারিয়া মন্টেশ্বরী

Imagination is more important than knowledge.

অ্যালবার্ট আইনস্টাইন

Please reload